পাকিস্তানের দর্শনীয় উপত্যকা ও গিরিপথ

অপার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি পাকিস্তান ও পাকিস্তান-শাসিত কাশ্মীরের কয়েকটি দর্শনীয় স্থানের কথা জানানো হলো। ভ্রমণপিয়াসীরা সময় ও সুযোগ পেলে ঘুরে আসতে পারেন।

নীলম ভ্যালি : কাশ্মীরে (পাকিস্তান-শাসিত) অবস্থিত ১৪৪ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি বো-শেপড (ধনুক আকৃতি) উপত্যকা এটি। কাশ্মীরের রাজধানী মুজাফ্ফরাবাদের উত্তর উত্তর-পূর্ব দিকে হিমালয়ের কোল ঘেঁষে এটি অবস্থিত। নীলম নদীবিধৌত এই উপত্যকাটি অনাবিল প্রকৃতিক সৌন্দর্যের আধার। এর রয়েছে অনন্য প্যানারমিক ভিউ। সশব্দে বয়ে চলা এই পাহাড়ি নদীটির দুই পাড়ে উঁচু পর্বতশ্রেণি, ঘন সবুজ অরণ্য আর দৃষ্টিনন্দন প্রাকৃতিক সুষমা আপনাকে নিয়ে যাবে স্বপ্নের কোনো এক দেশে। এ যেন ভ্রমণপিপাসুদের জন্য এক তীর্থস্থান। আছে চমৎকার কিছু দর্শনীয় স্থানও। এর মধ্যে আছে ভারতীয় উপমহাদেশের প্রাচীনতম বিশ্ববিদ্যালয় ‘সারদা ইউনিভার্সিটি’।
হুনজা ভ্যালি : গিলগিট-বালটিস্তান প্রদেশের একটি পাহাড়ি উপত্যকা এটি। হুনজা নদীর উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত এটি একটি রাজসিক উপত্যকা। আড়াই হাজার মিটার উচ্চতায় অবস্থিত এই উপত্যকাটির রয়েছে তিনটি ধাপ- উচ্চতর হুনজা (গোজাল), কেন্দ্রীয় হুনজা এবং নিম্নতর হুনজা।

নয়নাভিরাম এই উপত্যকায় দেখার মতো অনেক কিছু পাবেন ভ্রমণেচ্ছুরা। রাকাপোশি বেস ক্যাম্প, দিরান বেস ক্যাম্প, হপার হিমবাহ এবং আত্তা আবাদ লেক তাদের ভ্রমণের তৃষ্ণা মেটাবে।
কঙ্গন ভ্যালি : মনসেহরা জেলার উত্তর-পূর্ব দিকে অবস্থিত একটি ভ্রমণবান্ধব আর দৃষ্টিনন্দন উপত্যকা কঙ্গন ভ্যালি। পাকিস্তানের এই আকর্ষণীয় স্থানটি দেখার জন্য সারা পৃথিবী থেকে ভ্রমণপিপাসুরা ছুটে আসেন। মনোমুগ্ধকার প্রাকৃতিক বৈভব-মোড়া এই উপত্যকাটি হাজারা বিভাগের অন্যতম দর্শনীয় স্থান হিসেবে বিবেচিত। অসাধারণ সব লেকের সমাহার আছে এখানে- আছে লুলু সার, দুদিপাত সার আর সাইফুল মুলক লেক, আছে বাবুসার গিরিপথ এবং আরও অনেক অনেক কিছু।

মুরী পাহাড় : এ পাহাড় গরমের ছুটিতে আপনাকে ডাকবে। রাওয়ালপিন্ডি জেলার সাব-ডিভিশন মুরীতে অবস্থিত এই গ্রীষ্মের অবকাশযাপনকেন্দ্রটি। এটি ছিল পাঞ্জাব প্রদেশের ব্রিটিশ শাসকদের ‘সামার ক্যাপিটাল’। সারা পৃথিবী থেকে এখানে পর্যটকরা গরমের সময় আসেন ছুটি কাটাতে আর শীতে আসেন এখানকার আশ্চর্য-সুন্দর তুষারপাত দেখতে। মুরীর অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটন স্পট হলো গালিয়াত। এশিয়ার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গরমের সময় এখানে পর্যটকরা আসেন শ্যামলিমায় ছেয়ে যাওয়া অনাবিল সৌন্দর্যের স্বাদ আস্বাদনে। দুঙ্গা গালি, মুসকপুরি গালি, নাথিয়া গালি এখানকার প্রসিদ্ধ পিকনিক স্পট।
শান্দুর পাস (গিরিপথ) : এখানে অবস্থিত পৃথিবীর সর্বোচ্চ পোলো গ্রাউন্ড। যার উচ্চতা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩৭৩৮ মিটার। প্রতি গরমে এক জমজমাট পোলো ফেস্টিভ্যাল অনুষ্ঠিত হয় এখানে। চিত্রল আর গিলগিটকে এক করেছে এই শান্দুর গিরিপথ। অসাধারণ সুন্দর এই গিরিপথটি দেখতে সারা পৃথিবী থেকে পর্যটকরা ভিড় করেন। বিশেষ করে বর্ণাঢ্য ও ‘ফ্রি-স্টাইল’ পোলো কনটেস্ট উপভোগের জন্য।
জিয়ারাত : পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের জিয়ারাত জেলার রাজধানী জিয়ারাত। পাহাড়বেষ্টিত নয়নাভিরাম এই নগরটি ভ্রমণপ্রিয়দের কাছে এক পছন্দের ঠিকানা। কোয়েটা ভ্রমণ অসম্পূর্ণ থেকে যাবে জিয়ারাতে না গেলে। পাহাড়বেষ্টিত হওয়ায় গরমের সময়ও এখানে বেশ ঠাণ্ডা থাকে এবং শীতকালে চলে অবিরাম দৃষ্টিনন্দন তুষারপাত।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *