দাবানলে মৃত্যুর মিছিল ছুঁয়ে গেল টমসনকেও

একজন সাবেক স্পিনার, আরেকজন সাবেক পেসার। নিজ নিজ সময়ের তো বটেই, শেন ওয়ার্ন ও জেফ টমসন সর্বকালেরই অন্যতম সেরা লেগি ও পেসার। দুই প্রজন্মের দুই বোলারকে এক বিন্দুতে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার দাবানল।

হাজার হাজার মানুষ আর বন্য পশুপাখির মৃত্যু ছুঁয়ে গেছে দুজনকেই। দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে নিজের ‘ব্যাগি গ্রিন’ টুপি নিলামে তুলেছেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি স্পিনার। তাঁর দেখাদেখি এবার এগিয়ে এলেন আরেক কিংবদন্তি টমসনও। ব্যাগি গ্রিন টুপির পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যে নিজের খেলার সাদা সোয়েটারও নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে হাজার হাজার মানুষ আর বন্য পশুপাখির মৃত্যু ছুঁয়ে গেছে দেশটির দুই কিংবদন্তি বোলার শেন ওয়ার্ন ও জেফ টমসনকে

৬৯ বছর বয়সী টমসন গতকাল বলেছেন, ‘আমার কাছে বেশি স্মারক নেই। সে জন্যই এই দুটি স্মারক খুব বিরল এবং বিশেষ কিছু। এগুলোর দাম কত উঠবে বলা কঠিন। আশা করি, ভালো একটা দাম পাওয়া যাবে, যা ক্ষতিগ্রস্তদের কাজে দেবে।’

ভালো দাম যে পাওয়া যাবে, তা অবশ্য শেন ওয়ার্নের টুপি কিনতে আগ্রহীদের দাম হাঁকা দেখেই বোঝা যায়। ওয়ার্নের টুপির নিলাম শেষ হওয়ার এখনো দুই দিন বাকি। এরই মধ্যে এটির দাম পাঁচ লাখ অস্ট্রেলীয় ডলার ছাড়িয়ে গেছে। এই দামেও যদি ওয়ার্নের টুপি বিক্রি হয়, তাহলেও এটি হবে ‘ব্যাগি গ্রিন’ টুপির সর্বোচ্চ দামের রেকর্ড। এর আগে ২০০৩ সালে স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের ব্যাগি গ্রিন টুপির নিলাম থেকে পাওয়া গিয়েছিল ৪ লাখ ২৫ হাজার অস্ট্রেলীয় ডলার।

শুধু ক্রিকেটাররাই নন, অস্ট্রেলিয়ার বাস্কেটবল খেলোয়াড়েরাও দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে এগিয়ে এসেছেন। অস্ট্রেলিয়ার ৯ জন বাস্কেটবল খেলোয়াড় এবং ন্যাশনাল বাস্কেটবল প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন ফাউন্ডেশন মিলে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ৭ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *